শুক্রবার,৫ই মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

এবার ভূমি দস্যু লবিষ্টদের ’টার্গেট কলাপাড়া পৌরসভা নির্বাচন’ মিশন

মুক্তখবর :
জানুয়ারি ১৬, ২০২১
news-image

গোফরান পলাশ, কলাপাড়া প্রতিনিধি : চতুর্থ ধাপে ১৪ ফেব্রুয়ারী অনুষ্ঠিতব্য পৌরসভা নির্বাচনকে ঘিরে জমে উঠতে শুরু করেছে দেশের দক্ষিনের সমুদ্র উপকূলবর্তী শহর পটুয়াখালীর কলাপাড়া। প্রধান দু’টি রাজনৈতিক দল বিএনপি ও আওয়ামীলীগ ইতোমধ্যে স্থানীয় সরকার পরিষদের এ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় অংশ নিতে দলীয় প্রার্থী চূড়ান্ত করেছে। চরমোনাই পীর’র নেতৃত্বাধীন ইসলামী শাসন তন্ত্র আন্দোলন দলীয় প্রার্থী নির্ধারন করলেও প্রার্থী নেই জাপা (এ), জাসদ সহ অন্যান্য রাজনৈতিক দলগুলোর। স্থানীয় ভোটারদের মধ্যে ক্রমশ: নির্বাচনী উত্তাপ ছড়াচ্ছে। শহরে বাড়ছে অচেনা বহিরাগতদের আনাগোনা সহ ’নৌকা’ প্রতীক বিরোধী অপতৎপরতা।-তথ্য নির্ভরযোগ্য সূত্রের সদ্য সমাপ্ত পর্যটন কেন্দ্র কুয়াকাটা পৌরসভা নির্বাচনে নৌকা’র ভরাডুবির পর কুয়াকাটার ভূমি দস্যু লবিষ্টদের চোখ এখন কলাপাড়া পৌরসভা নির্বাচনের দিকে। ভূমি দস্যু ওই লবিষ্টদের পরিকল্পনা বাস্তবায়নে জামাত-বিএনপি ঘরানার কিছু চিহ্নিত মিডিয়া কর্মী ও ক্ষমতাসীন দলের রাতারাতি পদ পদবী পাওয়া দলছুট কিছু নেতা ’টার্গেট কলাপাড়া পৌরসভা নির্বাচন’ মিশন নিয়ে মাঠে নামতে দফায় দফায় বৈঠক, ভার্চুয়াল মত বিনিময় করছে বলে জানিয়েছে নির্ভর যোগ্য সূত্র। শুক্রবার (১৫ জানুয়ারী) বিকেলে নৌকা প্রতীকের চিঠি নিয়ে ঢাকা থেকে ফেরার পর দলীয় কর্মী সমর্থকদের নৌকা’র মিছিলে এসব লবিষ্টদের দু’একজনকে দেখা গেছে নৌকা প্রতীকের মেয়র প্রার্থীর বাম পাশে। যা নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম সরব হয়ে উঠেছে। এ ইস্যুতে ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মাহমুদুল আলম টিটো তার ফেসবুক পেইজে লিখেছেন ’দলের নীতি আদর্শের কথা শুধুই গলাবাজি। তাহলে কি আমরা ধরে নিবো, যারা দল ত্যাগ করে আওয়ামীলীগ করতে এসেছে তারাই বড় ত্যাগী।’ মিছিল শেষে দলছুট ওই কুয়াকাটার ভূমি দস্যু’র দলীয় অফিসে উপস্থিতি নিয়ে প্রতিবাদ ওঠে আ’লীগ নেতা-কর্মীরদের মধ্যে। তারা উপজেলা আওয়ামীলীগের সম্পাদককে তাদের প্রতিবাদ জানালেও তিনি বিষয়টি এড়িয়ে যান বলে জানায় সূত্রটি। উপজেলা আওয়ামীলীগের একটি নির্ভরযোগ্য সূত্র জানায়, কুয়াকাটায় নৌকা’র বিরুদ্ধে নির্বাচন করে জাপা, বিএনপি’র দলছুট ওই ভূমি দস্যু আনোয়ার হোসেন হাওলাদার কিভাবে আ’লীগের মিছিলে ও পার্টি অফিসে এসে ফ্রন্ট লাইনে থাকে? বিষয়টি নিয়ে নেতা-কর্মীরা প্রতিবাদ করার পর উপজেলা আওয়ামীলীগ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল মোতালেব তালুকদার কুয়াকাটার মেয়র আনোয়ার কার সাথে পার্টি অফিসে এসেছেন তিনি জানেন না বলে এড়িয়ে যান। এদিকে রবিবার ১৭জানুয়ারী নির্বাচন অফিসারের কার্যালয়ে মনোনয়ন দাখিলের শেষ দিন। নৌকা প্রতীক, ধানের শীষ, হাত পাখা প্রতীক সহ আ’লীগ নেতা মাসুম স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে মেয়র পদে মনোনয়ন দাখিল করবেন বলে নিশ্চিত করেছে একটি সূত্র। ক্ষমতাসীন দলের একটি বৃহৎ অংশের নেতা কর্মীরা পৌর আওয়ামীলীগ সম্পাদক দিদার উদ্দিন আহমেদ মাসুম (স্বতন্ত্র প্রার্থী)’র পক্ষে নির্বাচনে অংশ নেয়ার কথা শোনা যাচ্ছে। ইতোমধ্যে দফায় দফায় তারা রুদ্ধদ্বার বৈঠক করেছেন নৌকা প্রতীকের বিপক্ষে ও স্বতন্ত্র প্রার্থীর পক্ষে নির্বাচনে মাঠে নামতে। এতে সরকারী দলের শীর্ষ পর্যায়ের নেতা-কর্মীরা নির্বাচনী পথ সভা কিংবা উঠান বৈঠকে নৌকা প্রতীকে ভোট দিতে কলাপাড়ার মানুষকে পায়রা সমুদ্র বন্দর, শের-ই-বাংলা নৌ-ঘাঁটি, নির্মানাধীন ১৩২০ মেগাওয়াটের চারটি তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র, কুয়াকাটা পর্যটন কেন্দ্র, শেখ হাসিনা ফোর লেন, সিক্স লেন সড়কের কোটি কোটি টাকার উন্নয়ন কাজের কর্মযজ্ঞ দেখালেও চরম দলীয় কোন্দল, ভূমি দস্যুদের গোপন মিশনে জামাত-বিএনপি ঘরানার সাংবাদিকদের তথ্য সন্ত্রাস কুয়াকাটা পৌরসভা নির্বাচনের মত পাল্টে দিতে পারে সব হিসাব নিকাশ। সাকসেসফুল হয়ে যেতে পারে তাদের ’টার্গেট কলাপাড়া পৌরসভা নির্বাচন’ মিশন।