সোমবার,১লা মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

সাভারে শীতবস্ত্র ও করোনা সুরক্ষা সরঞ্জামাদি বিতরণ

মুক্তখবর :
জানুয়ারি ১৯, ২০২১
news-image

ফয়জুল ইসলামঃ সাভার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে স্টেট ব্যাংক অব ইন্ডিয়ার অর্থায়নে এবং বঙ্গবন্ধু গবেষণা সংসদ ও একাত্তুরের ঘাতক দালাল নির্মুল কমিটির চিকিৎসা সহযোগী কমিটির আয়োজনে শীতবস্ত্র এবং করোনা সুরক্ষা সরঞ্জামাদি বিতরণ হয়েছে। আজ মঙ্গলবার (১৯ জানুয়ারি) দুপুরে সাভার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের হলরুমে এই অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়। বঙ্গবন্ধু গবেষণা সংসদের সভাপতি প্রোফেসর ডা. উত্তম কুমার বড়ুয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডাঃ এনামুর রহমান এমপি। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সাভার উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মোহাম্মদ সায়েমুল হুদা। এসময় তিনি বলেন, সাভারের মাটি ও মানুষের নেতা মাননীয় দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশের যেকোনো দূর্যোগ মোকাবেলায় বলিষ্ঠভাবে কাজ করে চলেছেন। তিনি আমাদের সাভার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সেরও অভিভাবক। তার দিক নির্দেশনায় আমরা সারাদেশের স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ভিতরে যৌথভাবে প্রথম হয়েছি এবং স্বাধীনতার পরে প্রথমবারের মতো ন্যাশনাল হেলথ মিনিষ্টার’স অ্যাওয়ার্ড অর্জন করেছে সাভার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স। এছাড়া বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন স্টেট ব্যাংক অব ইন্ডিয়ার বাংলাদেশের কান্ট্রি হেড ডক্টর প্রকাশ চাঁদ সাবু, স্টেট ব্যাংক অব ইন্ডিয়ার ঢাকা ব্রাঞ্চের চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার সুমন্ত ঘোষ, ইভাক ঢাকার ডেপুটি চীফ অপারেটিং অফিসার গৌরব চক্রবর্তী, ইভাকের ম্যানেজার (অপারেশন) সৈয়দ আরশাদ আলী, নবনির্বাচিত সাভার পৌর মেয়র আলহাজ্ব আব্দুল গণি প্রমুখ। ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডাঃ এনামুর রহমান প্রধান অতিথির বক্তব্যে জানান, ভারত বাংলাদেশের বন্ধু রাষ্ট্র এবং মহান মুক্তিযুদ্ধে এক কোটি শরণার্থীদের আশ্রয় প্রদান সহ মুক্তিযুদ্ধে আমাদের ব্যপক সহায়তা প্রদান করেছে। বর্তমান করোনাকালেও ভারত আমাদেরকে করোনার টিকা প্রদান করে এই সহযোগিতা অব্যহত রেখেছে। এছাড়া স্টেট ব্যাংক অব ইন্ডিয়া আজ যে শীতবস্ত্র এবং করোনা সুরক্ষা সামগ্রী প্রদান করছে এজন্য তাদেরকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই। পরে সাভার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের রোগীদের মাঝে শীতবস্ত্র হিসেবে কম্বল এবং মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ করা হয়।