বুধবার,১৪ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

কিস্তির চাপে গৃহবধূর গলায় ফাঁস

মুক্তখবর :
ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০২১
news-image

ঢাকা, বুধবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১ (নিজস্ব প্রতিনিধি): যশোরের মণিরামপুরে এনজিও’র কিস্তির চাপ সইতে না পেরে লিপিকা মণ্ডল (২৬) নামে এক গৃহবধূ গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় উপজেলার পাঁচকাঠিয়া গ্রামে ঘটনাটি ঘটে। খবর পেয়ে রাতেই মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। লিপিকা ওই গ্রামের ভ্যান চালক সুশান্ত মণ্ডলের স্ত্রী। পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, লিপিকার স্বামী ও শাশুড়ি বুদ্ধি প্রতিবন্ধী। স্বামী ভ্যান চালিয়ে সংসারে কিছু যোগান দিলেও মূলত সংসারের ভার ছিল লিপিকার ওপর। তিনি যখন যেই কাজ পেতো সেটি করেই সংসার চালাতেন। সংসারের ঘানি টানতে গিয়ে বিভিন্ন সমিতির কাছে প্রায় দেড় লাখ টাকা ঋণ নেন লিপিকা। নামমাত্র আয়ের টাকা দিয়ে ঋণের কিস্তি টানতে পারছিলেন না তিনি। গতকাল মঙ্গলবারও গ্রামীণ, দিবাস ও অগ্রগতি নামে তিনটি সমিতিতে এক হাজার ৭০০ টাকার কিস্তি ছিল। যা দিতে না পারায় বাড়তি কথা শুনতে হয়েছে তাকে। এরফলে সন্ধ্যায় ঘরের আড়ার সাথে রশি দিয়ে ফাঁস দেন লিপিকা। মণিরামপুর থানার এসআই হাসানুজ্জামান বলেন, খবর পেয়ে গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করে আজ সকালে মর্গে পাঠানো হয়েছে। এই ঘটনায় থানায় অপমৃত্যু মামলা করেছেন লিপিকার স্বামী।