রবিবার,১৮ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

ভারত-পাকিস্তানকে বন্ধু হিসেবে দেখতে চান মালালা

মুক্তখবর :
মার্চ ২, ২০২১
news-image

স্বাধীনতার সূচনা লগ্ন থেকেই ভারত-পাকিস্তান একে অন্যের চির প্রতিদ্বন্দ্বী। লড়াইয়ের ময়দানে একাধিকবার মুখোমুখি হয়েছে এ দুটি দেশ। সীমান্তে যুদ্ধ যেন তাদের কাছে একটি প্রত্যাহিক রুটিনে পরিণত হয়েছে। এমন সময়ে প্রতিবেশী দুই দেশকে নিয়ে শান্তির বার্তা দিলেন মালালা ইউসুফজাই। সোমবার (১ মার্চ) ভারতীয় গণমাধ্যম সংবাদ প্রতিদিনের একটি প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানানো হয়েছে। ভারতীর সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছে, রোববার (২৮ ফেব্রুয়ারি) ভারতের জয়পুর সাহিত্য উৎসবে ভার্চুয়ালি অংশগ্রহণ করেন শান্তিতে নোবেল পুরস্কারজয়ী মালালা। সেখানে তিনি বলেন, আপনি ভারতীয়, আমি পাকিস্তানি। আমরা আমাদের মতো ভালো আছি। তাহলে এত বিদ্বেষ কেন? সীমান্ত এবং বিভাজনের মাধ্যমে আলাদা করে জয় করা এসব পুরনো দর্শন এখন আর কাজ করে না। মানুষ হিসেবে আমরা সবাই শান্তিতে থাকতে চাই। তিনি আরও বলেন, ভারত ও পাকিস্তানের আসল শত্রু হলো দারিদ্র্য, বৈষম্য ও অসাম্য। নিজেদের মধ্যে লড়াই না করে দুই দেশের উচিত এ শত্রুগুলোর বিরুদ্ধে যৌথভাবে লড়াইয়ে নামা। আমি ভারত ও পাকিস্তানকে প্রকৃত বন্ধু হিসেবে দেখতে চাই। ওইদিন সংখ্যালঘুদের নিপীড়ন নিয়েও কথা বলেন মালালা। তিনি বলেন, পাকিস্তানে হিন্দু, শিখ ও খ্রিস্টান সংখ্যালঘুরা বিপন্ন। একইভাবে মুসলিম ও দলিতরা ভারতে সুরক্ষিত নন। ২০১২ সালে মালালা ইউসুফজাইকে গুলি করে হত্যাচেষ্টা করা হয়েছিল। সেই ঘটনায় শিউরে উঠেছিল পুরো বিশ্ব। তখন মালালা ছিলেন স্কুলছাত্রী। তারপর থেকে নারী শিক্ষার অধিকার, বৈষম্য ও সংখ্যালঘু নিপীড়নের বিরুদ্ধে কথা বলতে শুরু করেন তিনি। এবার ভারত-পাকিস্তানের দীর্ঘদিনের শত্রুতাপূর্ণ সম্পর্ক নিয়েও কথা বললেন শান্তিতে নোবেলজয়ী এই মানবাধিকার কর্মী।