রবিবার,১৮ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

পরকীয়া দেখে ফেলায় যুবককে ডেকে নিয়ে ছুরিকাঘাতে হত্যা

মুক্তখবর :
মার্চ ৮, ২০২১
news-image

ঢাকা, সোমবার, ০৮ মার্চ ২০২১ (নিজস্ব প্রতিনিধি): ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলায় পরকীয়া দেখে ফেলায় ডেকে নিয়ে ছুরিকাঘাতে এক যুবককে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। নিহত যুবকের নাম রাজু মিয়া (২০)। রোববার রাত সাড়ে ৯টার দিকে পৌরশহরের দেবগ্রাম এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এদিকে এ ঘটনায় পরকীয়া প্রেমিকাসহ ছয়জনকে আটক করেছে পুলিশ ।নিহত রাজু ওই গ্রামের দুলাল মিয়ার বাড়ির ভাড়াটিয়া বাসিন্দা আলমগীর মিয়ার ছেলে। তার গ্রামের বাড়ি নোয়াখালী জেলার রামগতি উপজেলার চরজগবন্ধু গ্রামে। পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, কাজ শেষে রোববার রাত সাড়ে ৯টার দিকে বাড়িতে ফিরছিলেন রাজু মিয়া। এ সময় বাড়ির কাছ থেকে শুভ নামের ওই যুবক ডেকে নিয়ে যায় রাজুকে। দেবগ্রামের স্টিল ব্রিজ এলাকার নির্জন স্থানে নিয়ে কিছু বুঝে ওঠার আগেই রাজুকে ছুরিকাঘাত করে শুভ। এতে গুরুতর আহত হন রাজু। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা দেন। অবস্থা আশঙ্কাজনক হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নেওয়ার পথে আশুগঞ্জ এলাকায় রাত সাড়ে ১২টার দিকে তার মৃত্যু হয়। তবে শুভর পরকীয়া দেখে ফেলায় রাজুকে হত্যা করা হয়েছে বলে নিহতের স্বজনরা জানিয়েছেন। এ ঘটনার পর অভিযুক্ত শুভ পলাতক থাকলেও শুভর মা শাহনাজ বেগম (৩৫) ও পরকীয়া প্রেমিকাসহ (১৮) ছয়জনকে আটক করেছে পুলিশ। অভিযুক্ত শুভ দেবগ্রামের শেখ রেজাউল করিমের বাড়ির ভাড়াটিয়া বাসিন্দা এবং ভ্যানচালক মহিউদ্দিন মিয়ার ছেলে। নিহতের মা মনোয় র বেগমের অভিযোগ, তিন মাস আগে পাশের বাড়ির এক কিশোরীর সঙ্গে রাতে শুভ পরকীয়ায় লিপ্ত হয়। এসময় আমার ছেলে সেটা দেখে ফেলে। এনিয়ে শুভর সঙ্গে রাজুর কথা কাটাকাটি হয়। এর জেরেই আমার ছেলেকে সে হত্যা করেছে। আমি এ হত্যা কাণ্ডের সুষ্ঠু বিচার চাই। আখাউড়া থানার ওসি রসুল আহমদ নিজামী জানান, এ ঘটনায় মামলা প্রক্রিয়াধীন। হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় জড়িত সন্দেহে আটকদের জিজ্ঞাসা করা হচ্ছে। অভিযুক্ত শুভকে গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। মরদেহ উদ্ধার করে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।