সোমবার,১৯শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

ভাড়া দিতে না পারায় বাস থেকে ছুড়ে ফেলা হলো নারীকে

মুক্তখবর :
মার্চ ৯, ২০২১
news-image

মাসুম পারভেজ :  ঢাকার কেরানীগঞ্জে ভাড়া দিতে ব্যর্থ হওয়ায় প্রতিবন্ধী এক নারীকে চলন্ত বাস থেকে ছুড়ে ফেলে দেওয়া হয়েছে। গতকাল সোমবার (৮ মার্চ) এমন ঘটনার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ছে। ঘটনাটি ঘটে গত রোববার (৭ মার্চ) কেরানীগঞ্জের রোহিতপুর বাজার এলাকায়। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ভিডিও চিত্রে দেখা যায়, গত (৭ মার্চ) সকাল পৌনে ৯ টার দিকে এন মল্লিক নামের একটি বাস থেকে ছুড়ে ফেলা হয় বোরকা পরা ওই নারীকে। মাটিতে পড়ে তিনি অস্ফুট স্বরে গোঙাচ্ছিলেন। পরে স্থানীয় লোকজন গিয়ে তাকে মাটি থেকে তোলেন। ভিডিও চিত্রেই দেখা যায়, গাড়ির নম্বর ঢাকা মেট্রো ব-১৩-১৫২১। এন মল্লিক বাসটি গুলিস্তান-নবাবগঞ্জ রুটে চলাচল করে। মাটিতে ছুড়ে ফেলে দেওয়া ওই নারী বাক্‌প্রতিবন্ধী ছিলেন, যা আইন প্রয়োগকারী সংস্থার একটি সূত্র নিশ্চিত করেছে। সূত্রটি বলেছে, নারীকে ছুড়ে ফেলে দেওয়া বাসের চালকের সহকারীর নাম হাসান (২২)। তার বাড়ি নবাবগঞ্জের জয়কৃষ্ণ এলাকায়। চালক ছিলেন সবুজ মিয়া (৪০) নামের এক ব্যক্তি। ঘটনাস্থলে উপস্থিত লোকজনকে ওই নারী তাকে বাস থেকে ছুড়ে ফেলে দেওয়ার কারণ লিখে জানিয়েছেন। টাইলসের ওপর তার সেসব লেখার একটি স্থিরচিত্র সংগ্রহ করেছে। সেখানে ওই নারী লিখেছেন, ‘এন মল্লিক কোনাখোলা থেকে উঠাইসে। ভাড়া নাই। এন মল্লিক কোনো দিনও আমার থেকে ভাড়া নেয় না। এরা ভাড়া চায়। দিতে না পারায় এমুন ব্যবহার। এন মল্লিকের সবাই আমাকে চেনে। ও মনে হয় চিনে নাই। তাই বুজাবার চেষ্টা করসিলাম।” তিনি আরো একটি কাগজে লিখেন , “এখন যাব কি করে, আমার পা দিয়ে হাঁটতে পারছি না ব্যাথা। আমারে একটু ব্যাথার ওষুধ দিবা, দুই কান ভন ভন করছে, ব্যাথা করছে, মাথা ধরছে।” আরো লিখেন, “তার বাড়ি জয়পাড়া ঋষিপাড়া, নিচে লিখেন, ওই হেলাপারের নাকি জরিমানা দিতে হবে, আমার ভাড়া নাই তাই। এন মল্লিক ওঠায়ে দিবে জয়পাড়ার গাড়িতে।”