শনিবার,১৬ই অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

ম্যানসিটির উড়ন্ত সূচনা

মুক্তখবর :
সেপ্টেম্বর ১৬, ২০২১
news-image

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১ (স্পোর্টস ডেস্ক): চ্যাম্পিয়ন্স লিগে উড়ন্ত সূচনা করেছে ম্যানচেস্টার সিটি। আগের আসরের রানার্সআপরা, লাইপজিগকে হারিয়েছে ৬-৩ গোলে। মেসি-নেইমার-এমব্যাপ্পের পিএসজিকে পেছনে ফেলে গ্রুপ এ’তে শীর্ষে গার্দিওলার দল। অন্যদিকে বিগ ম্যাচে এসি মিলানকে ৩-২ গোলে হারিয়েছে লিভারপুল। ৬-৩। টেনিসের একটা সেটের হিসেবে বেশ মানানসই স্কোর। কিন্তু সেটা যদি হয় ফুটবলের চিত্র! চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ম্যানচেস্টার সিটি আর লাইপজিগের মধ্যকার ম্যাচের স্কোরলাইন এটাই রাতের ম্যাচটা না দেখে থাকলে, এই ফলাফল শুনে এতক্ষণে ইউটিউব বা গুগলে খোঁজ নেওয়া শুরু করেছেন অনেকেই। এতিহাদের দর্শকের হাতে কফির মগটা ঠাণ্ডা হয়েছে বারবার। চোখের সামনে বিনোদনের খোরাক কেইবা মিস করতে চায়! তাই নিশ্চয়ই কফির কাপে চুমুক দিতেও ভুলে গেছেন অনেকে। ১৬ মিনিটে ন্যাথান এইকের গোলে প্রথম লিড। যা বড় হয় লাইপজিগ ডিফেন্ডার নর্দি মুকিয়েলের আত্মঘাতী গোলে। স্পট কিক থেকে প্রথমার্ধে আরেকটি গোল করেন রিয়াদ মাহরেজ। বিরতির আগে আর বিরতি থেকে ফিরে দুই গোল শোধ করে ম্যাচ জমিয়ে তোলেন লাইপজিগ ফরোয়ার্ড এনকুনকু। পরে পূরণ করেছেন হ্যাটট্রিকও। কিন্তু, জার্মান ক্লাবটিকে একা আর কতোটুকু নিয়ে যাবেন! অন্যপাশে পেপ গার্দিওলার ডাগআউট টইটুম্বুর। মাথায় চুল থাকলে হয়তো কাকে রেখে কাকে খেলাবেন, তা ভাবতে ভাবতেই চুল পড়ে যেতো স্প্যানিশ ম্যানেজারের। তবে, এ রাতে ওসব ভাবার কি আছে! কোচকে শান্তি দিয়েছে গ্রেলিশ, ক্যানসেলো, জেসুসের গোলগুলো। ইউরোপীয় প্রতিযোগিতায় সিটিজেনদের সঙ্গে প্রথম সাক্ষাৎ কখনোই ভুলবে না লাইপজিগের ফুটবলাররা। এদিকে অ্যানফিল্ডের হাইভোল্টেজ ম্যাচে আধিপত্য ছিলো আরেক ইংলিশ জায়ান্ট লিভারপুলেরও। তবে চাইলে ভাগ্যকে দুষতে পারেন কোচ স্টেফানো পিওলি। শুরুতে তোমোরির আত্মঘাতী গোলটা না হলে, ফলাফল অন্যরকম হতেও পারতো। ইনজুরির কারণে ইব্রাহিমোভিচ না থাকলেও, প্রথমার্ধে লিভারপুলের জালে দুবার বল জড়ায় মিলানের সেনানীরা। স্কোর করেন রেবিচ ও ব্রাহিম দিয়াজ। কিন্তু রসোনেরিদের স্বপ্ন ভাঙে হেন্ডারসন ও সালাহর গোলে। মিশরীয় তারকার ১৪তম ইউসিএল গোলটা থাকলো রেকর্ড হয়ে। ইউরোপ শ্রেষ্ঠত্বের আসরে অ্যানফিল্ডে এখন কিংবদন্তি জেরার্ডের সমান গোল সালাহর।