শনিবার,১৬ই অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

রংপুরের পীরগাছায় গলায় ওড়না পেচিয়ে কলেজ ছাত্রীর আত্মহত্যা

মুক্তখবর :
সেপ্টেম্বর ২০, ২০২১
news-image

পীরগাছা (রংপুর) প্রতিনিধিঃ রংপুরের পীরগাছায় গলায় ওড়না পেঁচিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে এক কলেজ ছাত্রী। জানা গেছে, নিহত কলেজ ছাত্রী উপজেলার কৈকুড়ী ইউনিয়নের বিশিষ্ট ইট ভাটা ব্যবসায়ী হারুন অর রশিদ বাবলুর মেয়ে। সোমবার বিকেলে উপজেলার কৈকুড়ী ইউনিয়নের নজর মামুদ গ্রামে তার নিজ বাড়ির একটি কক্ষ থেকে ওই শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। নিহত ছাত্রী দেবী চৌধুরানী ডিগ্রী কলেজের শিক্ষার্থী। স্থানীয়রা জানায়, ওই গ্রামের বিশিষ্ট ইট ভাটা ব্যবসায়ী হারুন অর রশিদ বাবলু’র মেয়ে কামরুন্নাহার বর্ণি (১৮) সোমবার বিকেলে বাড়ির সকলের অগোচরে নিজ ঘরে ফ্যানের সাথে ওড়না পেচিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে। বিকাল ৫ টার দিকে পরিবারের লোকজন তাকে ফ্যানের সাথে ঝুলতে দেখে পুলিশে খবর দেয়। তবে আত্মহত্যার বিষয়ে কোন কারণ জানা যায়নি। কৈকুড়ী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম লেবু বলেন,ওই মেয়েটি আমার সম্পর্কে নাতনী হয়, আমি তাদের পরিবারের সাথে রিলেটেড। আমি যতটুকু জানি মেয়েটির মানসিক সমস্যা ছিল। এর আগেওমেয়েটি কয়েকবার আত্মহত্যার চেষ্টা করেছে। তাকে ডাক্তার দেখানো হয়েছিল। এ ঘটনায় পরিবারের পক্ষ থেকে কোনো রকম অভিযোগ নেই। চেয়ারম্যান বলেন, আমি থানা প্রশাসনের কাছে আবেদন করেছি যাতে পোস্টমর্টেম ছাড়াই লাশটি দাফনের অনুমতি দেয়। পীরগাছা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আজিজুল ইসলাম বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছি বিস্তারিত জানার চেষ্টা চলছে। এ বিষয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন ও লাশের সুরতহাল করেছেন এসআই ফজলে রাব্বী, তিনি জানান, বিষয়টি যতটুকু দেখলাম তাতে এটা আত্মহত্যা। এছাড়া পরিবারের কারো কোন ওজর আপত্তি না থাকায় পোস্ট মডেম ছাড়াই লাশ দাফনের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।